চট্টগ্রামের আলোচিত চাঁদাবাজি মামলার ৩ আসামির জামিন! আতঙ্কিত বাদি ও এলাকাবাসি


চট্টগ্রাম নগরীর চকবাজার এলাকার আলোচিত ১০ লক্ষ টাকা চাঁদাবাজির মামলার তিন আসামি জামিনে মুক্ত।

গত বুধবার মূল আসামি কথিত স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতা দেলোয়ার হোসেন ফরহাদসহ তিন জনের বিরুদ্ধে চট্টগ্রাম মেট্টোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট তৃতীয় এর আদালত কর্তৃক গ্রেফতারী পরোয়ানা ওয়ারেন্ট  জারি করার এক দিন তিনজন আসামিই একই আদালত হইতে জামিনে মুক্তি পাওয়ার ঘটনায় বাদি ও এলাকাবাসির মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

পিবিআই অনুসন্ধানী প্রতিবেদন – ৪
পিবিআই অনুসন্ধানী প্রতিবেদন – ৩
পিবিআই অনুসন্ধানী প্রতিবেদন -২
পিবিআই অনুসন্ধানী প্রতিবেদন -১

আদালত সুত্রে জানা যায় গত ২ অক্টোবর ২০১৯ তারিখে ভূক্তভোগী নুরুন্নবী চট্টগ্রাম মেট্টোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট তৃতীয় এর আদালতে উপস্থিত হয়ে  সি আর ৭১৫/২০১৯ দায়ের করিলে বিজ্ঞ আদালত ঘটনার সত্যতা যাচাই পূর্বক তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)কে নির্দেশ প্রদান করেন ।

পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) এর উপ-পুলিশ পরিদর্শক হুমায়ুন কবির মামলার তদন্তভার গ্রহণ করে  ঘটনার সত্যতার বৃত্তান্ত স্বাক্ষী-প্রমানসহ ৪ পাতার অনুসন্ধানী প্রতিবেদন গত ৬ নভেম্বর ২০১৯তারিখে বিজ্ঞ চট্টগ্রাম মেট্টোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে দাখিল করিলে বিজ্ঞ আদালত পিবিআই এর অনুসন্ধানী প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে গত ৫ ফেব্রুয়ারী ২০২০ তারিখে তিন আসামির বিরুদ্ধে ৩২৩ /৩৭৯ /৩৮৫ /৫০৬  /৩৪ ধারায় গ্রেফতারী ওয়ারেন্ট  জারী করে।

চাঁদাবাজ দেলোয়ার হোসেন ফরহাদ এর গ্রেফতারী ওয়ারেন্ট

চট্টগ্রাম মেট্টোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের  গ্রেফতারী ওয়ারেন্ট জারী খবর পেয়েই চাদাঁবাজগণ দেন-দরবার করে গ্রেফতারী ওয়ারেন্ট জারি একদিন পরের দিন ৬ ফেব্রুয়ারী ২০২০ আদালত হাজির হয়ে জামিনে মুক্ত হওয়ার ঘটনায় ভুক্তভুগি ও এলাকাবাসীরা  শঙ্কিত হয়ে পরেছে।

আদালত কর্তৃক আসামীদের জামিনের বিষয়ে “বাদি গার্মেন্টস ব্যবসায়ি  নুরুন্নবী”র নিকট জানতে চাইলে তিনি আদালতের প্রতি আস্থা রেখে কোন প্রকার  মন্তব্য করতে রাজি না হলেও ভুক্তভোগী ব্যবসায়ী  মামলার বাদী প্রতিবেদককে জানান আসামীরা প্রভাবশালী ও চাদাঁবাজ, প্রশাসনের উচ্চ পর্যায়ে কর্মকর্তাদের ম্যানেজ করে তারা এলাকায় নানা অপকর্ম করে। তারা জামিনে মুক্ত হওয়ায় যে কোনো সময় আমার উপর হামলা আশঙ্কা রয়েছে।

ইতিপূর্বে মামলা তুলে নেওয়ার জন্য আমাকে নানা রকম ভয়-ভীতি ও প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি প্রদান করেছেন, আমি নিরীহ ব্যবসায়ি, আমি আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল, ভবিষ্যৎতে আমি বিজ্ঞ আদালতে ন্যায় বিচার প্রার্থনা করবো।

মামলার স্বাক্ষীদের ও আসামী পক্ষের লোক জনের সাথে কথা বলে জানা গেছে  নগরীর চকবাজার কাপোসগোলা ইদ্রিস ভিলায় গার্মেন্টস ব্যবসায়ী নুর নবী থেকে বিভিন্ন সময় হত্যার হুমকি, অস্ত্র ধরে চাঁদা দাবি করে আসছে। কথিত স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা দেলোয়ার হোসেন ফরহাদ (৪৫), শহিদুল ইসলাম মন্ডল ওরফে (৪৫) , নেওয়াজ শরীফ অনি (২০), মির হোসেন পাটোয়ারী ওরফে মিটা (৩০) সহ একটি গ্রুপ। এলাকার মাদক, ইয়াবা, জুয়া, ফেন্সিডিল, জায়গা দখল, ফুটপাতে চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন অপরাধে যুক্ত রয়েছে বলে স্থানীয়দের অভিযোগ। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে দেশব্যাপী মাদক ইয়াবা, ক্যাসিনো, দুর্নীতি বিরোধী অভিযান শুরু হলে গ্রেফতারের ভয়ে বিদেশে পালিয়ে দেলোয়ার হোসেন ফরহাদ আত্বগোপনে যাওয়ার ঘটনাও ঘটে। এই বাহিনীর বিরুদ্ধে ব্যবসায়ী নুর নবী আদালত ছাড়াও একাধিক ভুক্তভোগী আসামীদের বিরুদ্ধে চকবাজার থানা ও পাঁচলাইশ থানায়  অভিযোগ করেছেন, কপোসগোলা এলাকার ভবনের মালিক মোহাম্মদ ইলিয়াছ গত ১৫ অক্টোবর পাঁচলাইশ থানায়, রওশন জাহান নামের এক মহিলা পুলিশ কমিশনারের নিকট তাদের অত্যাচার নির্যাতনে বিষয়ে অভিযোগ করেছেন।

এ বিষয়ে মামলার বাদি ব্যবসায়ী নুর নবী  আরো বলেন, আমি বৈধভাবে ব্যবসা করে আসছিলাম, নুর মোস্তাফা টিনু গ্রেফতার হওয়ার পর তারা আমার কাছ থেকে ১০ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করে আসছে। কোমর থেকে অস্ত্র বের করে আমাকে হুমকি দেন, এই দৃশ্যটি সিসি ক্যামরায় রেকর্ড রয়েছে। পুলিশের কোন সহযোগিতা না পাওয়ায় আমি আদালতে তাদের বিরুদ্ধে মামলা করেছি। আসামিদের বিরুদ্ধে আদালত গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি হয়েছে। অদ্য তারা আদালত হয়ে জামিন নিয়েছে।

এ বিষয়ে মো. ইলিয়াছ বলেন, দেলোয়ারসহ একটি সন্ত্রাসী গ্রুপ এলাকায় চাঁদাবাজি, মানুষকে মারধর, জায়গা দখলসহ বিভিন্ন অপরাধের কারণে লোকজন অতিষ্ট, তারা আমাকেও মারধর করছিল, বিষয়টি আমি থানায় অভিযোগ করার পর পুলিশ সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে কোন ধরণের ব্যবস্থা নেয়নি।

চকবাজার এলাকার স্থানীয় এক ভুক্তভোগি নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান কথিত স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা দেলেয়ার হোসেন ফরহাদের চাঁদাবাজী ও অত্যাচারে এলাকাবাসী অতিষ্ট হলেও কেউ ভয়ে তাদের বিরুদ্ধে মুখ খুলতে চায় না।

আলোচিত চাঁদাবাজির মামলায় ৩ আসামির জামিনের বিষয়ে বাদি পক্ষের আইনজীবি ছৈয়দ মিনহাজ মোর্শেদ এর নিকট  জানতে চাইলে এ বিষয়ে তিনি কোনো প্রকার মন্তব্য করতে রাজি হননি ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় পটুয়াখালীতে স্কুল ছাত্রের মৃত্যু! দোষীদের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ

রাজিব হোসেন সুজন, স্টাফ রিপোর্টারঃ পটুয়াখালীতে ডাক্তারদের অবহেলায় স্কুল ছাত্র আরদিন খান অভির মৃুত্যর ঘটনায় ...